পবিত্র রমজান মাসে স্কুল-কলেজে সর্বোচ্চ সাড়ে ৩ ঘণ্টা ক্লাস হবে। বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

মাউশি মহাপরিচালক প্রফেসর নেহাল আহমেদ স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের শিখন ঘাটতি মেটাতে স্কুল-কলেজে সশরীরে পাঠদান পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এক শিফটের প্রতিষ্ঠানে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ক্লাস হবে। দুই শিফটের প্রতিষ্ঠানে প্রথম শিফট সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ১১টা ১০ মিনিট পর্যন্ত এবং দ্বিতীয় শিফটের ক্লাস বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর ২টা ১০ মিনিট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।এতে আরও বলা হয়, দুই শিফটের স্কুল-কলেজে প্রতিদিন ৪টি ক্লাস হবে। আর এক শিফটের প্রতিষ্ঠানে ৫টি ক্লাস হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো স্ব স্ব রুটিন প্রনয়ন করবে।

সাধারণত পবিত্র রমজান মাসে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি থাকে। কিন্তু এবার করোনার কারণে অস্বাভাবিক ছুটির কারণে শিক্ষার্থীদের যে ক্ষতি হয়েছে, সেটি খানিকটা হলেও পুষিয়ে নিতে প্রথমে ২০ রমজান পর্যন্ত সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলা রাখার ঘোষণা দেয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরপর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত খোলার রাখার সিদ্ধান্তের কথা জানায়।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম উল্লেখ করে ছুটির বিষয়ে ফেসবুকে ভুযা পোস্ট দেওয়ায় সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষককে। ২০ রমজান পর্যন্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান অব্যাহত রাখতে সরকারি সিদ্ধান্তের বিষয়ে তারা ওই স্ট্যাটাস দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *